রোহিঙ্গাদের হত্যা-ধর্ষণ: তদন্ত করবে জাতিসংঘ

রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা,ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনা তদন্তের জন্য মিয়ানামারের রাখাইন রাজ্যে একটি আন্তর্জাতিক তথ্যানুসন্ধান দল পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতিসংঘ। শুক্রবার সংস্থাটির মানবাধিকার কাউন্সিল এ সিদ্ধান্ত নেয়।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন ‘অপরাধীদের পূর্ণ জবাবদিহিতা এবং ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ন্যায়বিচারের’ প্রস্তাব আনলে তদন্ত দল পাঠাতে একটি রেজ্যুলেশন গ্রহণ করে কাউন্সিল।

যুক্তরাষ্ট্র এতে সমর্থন জানালেও চীন এবং ভারত জানিয়েছে তারা এ সিদ্ধান্তের বাইরে থাকবে।

এদিকে রেজ্যুলুশনটি গ্রহণের আগে একে ‘গ্রহণযোগ্য নয়’ বলে প্রত্যাখ্যান করেন মিয়ানমারের দূত তিন লিন।

তিনি বলেন, সম্প্রতি মিয়ানমারের জাতীয় কমিশন বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়া ক্ষতিগ্রস্তদের জবানবন্দি নিয়েছে। আগামী আগস্টের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত মাসে প্রকাশিত জাতিসংঘ ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে বলা হয়েছে, গত বছরের অক্টোবর থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাতে ২২০ জন রোহিঙ্গা নিহত হয় এবং প্রায় ৭৫ হাজার পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো নির্যাতনকে মানবতাবিরোধী অপরাধ এবং সম্ভবত জাতিগত নিধন বলে অভিহিত করে জাতিসংঘ।