চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে জরুরী চিকিতসা পাচ্ছেনা রোগীরা

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের ওয়ার্ডে জরুরি চিকিত্সা পাচ্ছে না চিকিত্সাধীন রোগীরা। বিকাল থেকে সকাল পর্যন্ত চিকিত্সাধীন রোগীদের জীবন ঝুঁকির মধ্যে থাকে। এ সময় হাসপাতালে চিকিত্সক শূন্যতা দেখা দেয়। হাসপাতাল ১৫০ থেকে ২৫০ শয্যায় উন্নীত করার পর রোগীর চাপ বেড়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, ওয়ার্ডে সার্বক্ষণিক চিকিত্সা সেবা নিশ্চিত করতে পদ সৃজন করে মেডিক্যাল অফিসার নিয়োগ জরুরি হয়ে পড়েছে।

চট্টগ্রাম শহরের কেন্দ্রস্থল আন্দরকিল্লা এলাকায় অবস্থিত চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল। ১৫০ শয্যার হাসপাতালটি ২৫০ শয্যায় উন্নীত হওয়ার পর গত ২০১২ সাল থেকে চিকিত্সা কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু গত ৬ বছরেও হাসপাতালে অবকাঠামো উন্নয়ন, চিকিত্সকসহ প্রয়োজনীয় জনবলের পদ সৃজন করা হয়নি। হাসপাতালে রোগীর চাপ প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিন্তু পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা না থাকায় রোগীদের পদে পদে দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। হাসপাতালের প্রেক্ষাপট ও প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার অবহিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

সংশ্লিষ্টরা জানান, হাসপাতালে ৮টি বিভাগে রোগী ভর্তি করা হয়। প্রতিদিন গড়ে ২শ জনের বেশি রোগী চিকিত্সাধীন থাকে। সকালে বহির্বিভাগে চলে চিকিত্সা সেবা। জানা যায়, রোগীর চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় ওয়ার্ডে জায়গার সংকুলন হচ্ছে না। গাদাগাদি করে সিট বসিয়ে রোগী রাখতে হচ্ছে। এতে রোগীদের মধ্যে সংক্রামণের ঝুঁকি বেড়েছে। হাসপাতালে কোনো নিরাপত্তা প্রহরী নেই। ২৫০ শয্যার খাদ্য বরাদ্দ পাওয়া গেলেও ওষুধ বরাদ্দ এখনো মেলেনি।

কর্তৃপক্ষ জানায়, হাসপাতালে সবচেয়ে বেশি জরুরি হয়ে পড়েছে চিকিত্সাধীন রোগীদের সার্বক্ষণিক জরুরি সেবা দিতে মেডিক্যাল অফিসার নিয়োগ। এটি কলেজ সংশ্লিষ্ট না হওয়ায় ইন্টার্নি চিকিত্সক নেই।