শিবগঞ্জে ধান ক্ষেত থেকে ৪ লাশ উদ্ধার

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার আটমুল ইউপির ডাবইর ও বাদলাদিঘী গ্রামের মাঝখানের পাথারের ধানক্ষেতে পাওয়া চারটি গলাকাটা লাশের মধ্যে দুইজনের পরিচয় পাওয়া গেছে।এরা হল আটমুল ইউনিয়নের কাঠগাড়া চকপাড়া গ্রামের পান বিক্রেতা শাহাবুল ইসলাম (৩৩) ও একই গ্রামের রংমিস্ত্রি জাকারিয়া (৩০)। পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য লাশগুলো শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠিয়েছে।
দুপুরে বগুড়ার পুলিশ সুপার আশরাফ আলী ভুঁইয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কি কারণে এই নৃশংসতম হত্যাকাণ্ড এবং কারা এর পেছনে রয়েছে তার অনুসন্ধান চলছে।
এদিকে ধানক্ষেতে চারজনের গলাকাটা লাশ দেখে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। সোমবার সকালে লাশগুলো দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয় লোকজন। আটমুল ইউনিয়নের ডাবুইর গ্রামের পাশে বাদলাদিঘী এলাকার মাঝামাঝি স্থানে ঘটনাটি ঘটেছে।
শিবগঞ্জের ওসি শাহিদ মাহমুদ খান ঘটনা সম্পর্কে দুপুরে বলেন, দুইজনের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। এদিকে নৃশংসভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার শাহাবুল ও জাকারিয়ার বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। বিশেষ করে শাহাবুলের মা জাহানারা বেগমের কান্না থামছেই না।
শাহাবুলের ছোট ভাই জান্নাতুল ফেরদৌস সাংবাদিকদের জানান, তার ভাই রবিবার সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল। রাত ৯টার দিকে বাসায় ফোন করে বলেছিল, তার কাজ শেষ কিছুক্ষণের মধ্যেই বাড়ি ফিরবো। কিন্তু ভাইতো আর ফিরলো না, পেলাম তার লাশ!