চট্টগ্রামে দুই কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোরশেদ আক্তার চৌধুরী এবং সংরক্ষিত ১০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জেসমিনা খানমের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের আদালতে একটি মামলা দায়ের হয়েছে; মামলায় তাদের বিরুদ্ধে জাল প্রত্যয়নপত্র দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

রোববার চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম সাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়ার আদালতে মামলাটি দায়ের করেছেন নগরীর পাহাড়তলী থা

না এলাকার বাসিন্দা মোছাম্মৎ মেহেরুন্নেছা।

বাদীর আইনজীবী বাবুল দাশ বলেন, দুই কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪২০, ৪৬৮, ৪৭১, ৫০৬ ও ৩৪ ধারায় অভিযোগ করা হয়েছে। আদালত মামলা গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত ২৫ এপ্রিল ইয়াবাসহ মেহেরুন্নেছার ছেলে মেহেদি হাসান নাঈমকে গ্রেফতার করেছিল পাহাড়তলী থানা পুলিশ। এরপর চাঁদা না পেয়ে ছেলেকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে গত ৩০ এপ্রিল পাহাড়তলী থানার ওসি রফিকুল ইসলামসহ সাত পুলিশের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন মেহেরুন্নেছা।

মামলার আরজিতে মেহেরুন্নেছা অভিযোগ করেছেন, তার স্বামীর নাম সামশুল আলম। কিন্তু দুই কাউন্সিলর তার ছেলে নাঈমের বাবার নাম ‘জাহাঙ্গীর আলম’ লিখে গত ২৬ এপ্রিল পুলিশের কাছে অভিন্ন প্রত্যয়নপত্র দেন। এতে তার ছেলেকে আরেকটি মামলায় গ্রেফতার দেখাতে সক্ষম হয় পুলিশ।

এ প্রসঙ্গে কাউন্সিলর জেসমিনা খানম বলেন, ছেলের জন্মসনদসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে ওই নারীকে কার্যালয়ে আসতে বলেছিলাম। তিনি না আসায় ভেবেছিলাম, আমরা বাবার নাম যেটা জানি সেটা সঠিক। তাই ওই নামে প্রত্যয়নপত্র দিয়েছিলাম। সুত্র- একুশে পত্রিকা