ফেসবুকের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি গুজব ছড়াচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিদিন নানা ভাবে আমাদের দেশে গুজব ছড়াচ্ছে। আর এটা সবচেয়ে বেশি হচ্ছে ফেসবুকের মাধ্যমে। ‘গুজব প্রতিরোধে গণমাধ্যমের ভূমিকা’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সেকেন্ড ন্যাশনাল জার্নালিজম স্টুডেন্ট ফেস্ট–২০১৯ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রোববার (২৭ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি অডিটোরিয়ামে বেলা সাড়ে ১১টায় সেকেন্ড ন্যাশনাল জার্নালিজম স্টুডেন্ট ফেস্ট–২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়। এটি আয়োজন করেন বাংলাদেশ জার্নালিজম স্টুডেন্টস কাউন্সিল (বিজেএসসি)। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিজেএসসির সভাপতি সনজিৎ সরকার উজ্জ্বল এবং সঞ্চালনায় ছিলেন বিজেএসসির সাধারণ সম্পাদক ইমরান আহমেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান গুজব প্রতিরোধের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, আপনারা যেকোন ঘটনা আগে নিজের বিবেক দ্বারা বিবেচনা করুন, তারপর বিশ্বাস করুন। আমরা প্রথমে গুজব দ্বারা নানাভাবে প্রভাবিত হই, তারপর যখন গণমাধ্যমগুলো এ নিয়ে কথা বলে, তখন আমরা জানতে পারি প্রকৃত ঘটনা সম্পর্কে।

ওয়েজ বোর্ড সম্পর্কে তিনি বলেন, আমিও একজন ওয়েজ বোর্ড কমিটির সদস্য। এটি কিভাবে সামাধান করা যায় এ সম্পর্কে আমরা কাজ করছি।

অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন। তাছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কাজী আব্দুল মান্নান, ঢাবি গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আবু আলম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ফেইক নিউজের প্রভাবে সারাবিশ্ব আজ উদ্বিগ্ন। তিনি আরও বলেন, গণমাধ্যম সবসময় দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখে। তারা তাদের নিজেদের মতামত প্রকাশ করতে পারে না। তাদেরকে সবসময় নিরপেক্ষভাবেই সংবাদ প্রকাশ করতে হয়।