মার্চে চালু হচ্ছে কোভিড ট্রাভেল পাস

করোনায় সারাবিশ্ব এতদিন প্রায় অচল হয়ে পড়েছে। তবে মানুষের মনে করোনা নিয়ে যে ভয় ছিলো তা করোনার টিকা আসার পর দুর হচ্ছে। করোনা কমে যাওয়ায় মানুষ দেশ বিদেশ ভ্রমণ করছে।

যাত্রীদের আন্তর্জাতিক ভ্রমণ সহজ করতে মার্চের শেষ নাগাদ কভিড-১৯ ট্র্যাভেল পাস চালু করতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন সংস্থা (আইএটিএ), যা কোভিড পরীক্ষার ফলাফল এবং ভ্যাকসিন সনদকে একটি ডিজিটাল সিস্টেমে যুক্ত করবে। এ পাস যাত্রীদের আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে সহায়তা করবে। আইএটিএর বিবৃতি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে, দুবাইভিত্তিক সংবাদপত্র গালফ নিউজ। আইটিএ বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) জানিয়েছে, প্রতিটি দেশেরই তাদের নাগরিকদের ডিজিটাল ভ্যাকসিন সার্টিফিকেট প্রদান শুরু করা জরুরি, যা ভ্রমণ পাসের জন্য ব্যবহার করা যায়।

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে অনেক দেশ এখন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে। বেশকিছু দেশ সীমিত পরিসরে আকাশপথে যোগাযোগ চালু করলেও রয়েছে নানা বিধিনিষেধ ও কড়াকড়ি। ফলে চাইলেই এক দেশের নাগরিক অন্য দেশ ভ্রমণ করতে পারছেন না। এতে বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে সারা বিশ্বের এয়ারলাইন শিল্প। ইন্টারন্যাশনাল সিভিল অ্যাভিয়েশন অর্গানাইজেশনের (এসিএও) হিসাবে কোভিডের কারণে ২০২০ সালে সারা বিশ্বের এয়ারলাইন শিল্পে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ৩৭ হাজার কোটি ডলার।

আইএটিএ ট্রাভেল পাসের অধীনে ভ্রমণ সংক্রান্ত চাহিদার বিবরণ থাকবে। তাই যাত্রীরা যেকোনো গন্তব্যে ভ্রমণ ও প্রবেশের জন্য প্রয়োজনীয় সব সঠিক তথ্য পাবেন। এছাড়া টেস্টিং ও ভ্যাকসিনেশন কেন্দ্রগুলোর একটি রেজিস্ট্রি থাকবে। এতে অনুমোদিত ল্যাবরেটরি ও পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোর ফল ও ভ্যাকসিনেশন সনদ সুরক্ষিতভাবে যাত্রীদের পাঠাতে পারবেন। যাত্রীদের নিরবচ্ছিন্ন ও ঝামেলামুক্ত ভ্রমণ নিশ্চিত করতে আইএটি’র ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত বৈশ্বিক রেজিস্টারে সব অংশীদারদের প্রয়োজনীয় তথ্য থাকবে।