পঞ্চগড়ে রেজিস্ট্রি অফিস চত্তরে যুবককে পিটিয়ে রক্তাক্ত

পঞ্চগড় জেলা রেজিষ্ট্রার কার্যালয় চত্তরে শাহিন আলম (৩৫) নামে যুবকের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলাকারীরা শাহিনের মাথায় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। বর্তমানে শাহিন প গড় আধুনিক সদর হাসপাতালের একটি ক্যাবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোববার (২১ মার্চ) বেলা সোয় তিনটার দিকে পঞ্চগড় জেলা রেজিস্ট্রি অফিস চত্তরে হামলার ঘটনাটি ঘটে।

এদিকে হামলার খবর শুনে ঘটনাস্থলে যায় প গড় সদর থানার উপ পরিদর্শক নুর আলম । তবে পুলিশের খবর শুনে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। সরেজমিনে উপ পরিদর্শক নুর আলম জানায় মারধর একটি ঘটনার খবর শুনে এখানে এসেছি । আশে পাশের স্থানীয়রা জানায় এখানে কয়েকজন যুবক শাহিনের উপর হামলা চালায় । হামলার পর মাথায় আঘাত নিয়ে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে শাহিন । তবে টাকা ছিনতাইয়ের বিষয়টি এখনো স্পষ্ট নয়। তদন্ত করে জানা যাবে আসলে কি কারনে ওই যুবকের উপর হামলা হয়েছে।

এই ঘটনায় রোববার রাতেই পাঁচজন কে আসামী করে প গড় সদর থানায় অভিযোগ দাখিল করে শাহিনের বাবা সোলায়মানা আলী। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় রোববার ঘটনার সময় শাহিনের নিকট দুর্বৃত্তরা প্রথমে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে এসময় চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানায় শাহিন। অত:পর দুর্বৃত্তরা তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করে। পরে হাবিবুর রহমান লিটন নামে মুহুরির চেম্বারের সামনে একটি কালো ব্যাগ থেকে ২৪ লাখ টাকা বের করার সময় দুর্বৃত্তরা থাকে ঘেরাও করে তাকে ধারালো ছোড়া দ্বারা আঘাত করে। পরে শাহিনের কাছে থাকা টাকার ব্যাগটি ছিনতাই করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা ।

সরেজমিনে হাসপাতালে দেখা যায় মাথায় জখম নিয়ে শাহিন চিকিৎসা নিচ্ছেন । সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন চাঁদা দিতে আমি রাজী না হওয়ায় দিনে দুপুরে তারা আমার হামলা চালায় । তবে হামলাকারীরা পুরাতন পঞ্চগড় এলাকার মনে হয়েছে। তাদের দেখলেই আমি চিনতে পারবো । থানায় আমার বাবা এজাহার দাখিল করেছে ।

এদিকে শাহিনের বাবা সোলায়মান আলী জানায় রাতে হামলাকারীদের পাঁচজনের নামে থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে আজ রাতে মামলার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

পঞ্চগড় সদর থানার ওসি আবু আককাস আহম্মেদ বলেন এই ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।