লঞ্চের কয়েক দিনের মধ্যেই রিয়েলমি-র বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ, তিন মাসের ব্যান

খুব সম্প্রতি লঞ্চ হয়েছে রিয়েলমি জিটি নামক একটি স্মার্টফোন। লঞ্চের কয়েক দিনের মধ্যেই আকর্ষণীয় স্পেসিফিকেশনসের কারণে আলোড়নও সৃষ্টি করেছে ফোনটি। সেই রিয়েলমি জিটি ফোনটিকেই এবার ব্যান করে দিল বেঞ্চমার্কিং ওয়েবসাইট অ্যান টুটু। তিন মাসের জন্য রিয়েলমি জিটি-কে নিষিদ্ধ করল অ্যান টুটু।

অ্যান টুটু জানায়, বেঞ্চমার্কিং সাইটে ব্যাপকভাবে স্কোরিংয়ের প্রচারের মাধ্যমে এক ধরনের প্রতারণা করেছে রিয়েলমি জিটি। তদন্তে বিষয়টি ধরার পড়ার পরে রিয়েলমি জিটি-কে ৩ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। এছাড়া রিয়েলমির ওয়েবসাইটের ডেটাবেস থেকে রিয়েলমি জিটি ফোনটিকে সরাতে বাধ্য করেছে অ্যান টুটু।

চিনের জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম Weibo-তে খবরটি প্রথম জানায় অ্যান টুটু। খুব দ্রুত সমস্যার সমাধান করতেও রিয়েলমি -কে নির্দেশ দিয়েছে এই বেঞ্চমার্কিং ওয়েবসাইট। পাশাপাশিই সতর্কীকরণ বার্তা হিসেবে বলা হয়েছে যে, এই ধরনের কাণ্ড ভবিষ্যতে ঘটলে অ্যান টুটু থেকে চিরকালের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে রিয়েলমি-কে। এর অর্থ হল, রিয়েলমি যদি এখনই নড়েচড়ে না বসে, তাহলে আর কখনই কোনও স্মার্টফোনের জন্য অ্যান টুটু স্কোরিং পাবে না এই স্মার্টফোন নির্মাতা সংস্থা। অ্যান টুটু আরও দাবি করছে, মাল্টিথ্রেড টেস্টে ফোনের ওয়ার্কলোডকে আরও ফাস্টেস্ট কোরে অফলোড করেছে অ্যান টুটু, যার কারণে ফোনটির মাল্টি কোর স্কোর বেড়ে গিয়েছে। পাশাপাশিই এই একই কারণে JPG ডিকম্প্রেশন টেস্টেও ত্রুটি লক্ষ্য করা গিয়েছে বলে জানাচ্ছে অ্যান টুটু।

এই অভিযোগ ওঠার পর রিয়েলমি-র তরফে বলা হচ্ছে, ‘রিয়েলমি জিটি হ্যান্ডসেটে লেটেস্ট Qualcomm Snapdragon 888 প্রসেসর দেওয়া হয়েছে, যা ইউজারদের হাই-পারফরম্যান্স দিতে সাহায্য করবে। রিয়েলমি জিটি-র বেঞ্চমার্কিং স্কোরে অ্যান টুটু-র কারেন্ট ভার্সন অনুযায়ী ঠিকই আছে। রিয়েলমি সর্বদাই ইউজারদের অনবদ্য পারফরম্যান্সের স্মার্টফোন পৌঁছে দিতে চায়। ইউজারের অভিজ্ঞতা শ্রেষ্ঠ করাই রিয়েলমি-র একমাত্র লক্ষ্য। আমরা অ্যান টুটু-র সঙ্গেও সব সময়ই সম্পর্ক রেখে চলেছি, যাতে এই ভুল বোঝাবুঝি দূর করা যায়।’