May 8, 2021

লকডাউনে কুমিল্লায় ৪ দিনে ৪৫৫ মামলা, ৫ লাখ টাকা জরিমানা!

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকারের দেয়া নির্দেশনা অমান্য করায় কুমিল্লার বিভিন্ন উপজেলায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হয়েছে। প্রতিদিন মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন জেলা প্রশাসনের ২৩টি ভ্রাম্যমান আদালত। আর লকডাউনের গত ৪ দিনে আইন অমান্য করা, দোকানপাট খোলা রাখা ও মাস্ক না পরায় কুমিল্লা নগরীসহ ১৭ উপজেলায় মোট ৪৫৫ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ সময় বিভিন্ন ব্যাক্তি প্রতিষ্ঠানকে প্রায় ৪ লক্ষ ৬৫ হাজার ৫শ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

জানা যায়, দ্বিতীয় দফা লকডাউনে নগরীর শাসনগাছা, টমছমব্রীজ, ধর্মপুর, রাজগঞ্জ, চকবাজার, ফৌজধারী মোড়ে ৬ জন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে লকডাউন কার্যকরে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হচ্ছে। ভ্রামমান আদালত পরিচালনা করেন- জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানজিমা আঞ্জুম সোহানিয়া, শামিম আরা সুমি, এসএম মোস্তাফিজুর রহমান, অমিত দত্ত, গোলাম মোস্তফা ও মাজহারুল ইসলাম।

জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানজিমা আঞ্জুম সোহানিয়া বলেন, ‘সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসক ও জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসানের দিক—নির্দেশনায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ২১ টি মামলায় ৭ হাজার ৭শ ৫০ টাকা অর্থদন্ড জরিমানা করি। আবার অনেককে সর্তক করে ছেড়ে দিয়েছি। মানুষকে সচেতন করার জন্যই আমরা মূলত কাজ করছি।’

জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ বলেন, ‘লকডাউনের গত ৪ দিনে আইন অমান্য করায় কুমিল্লা শহরসহ ১৭ উপজেলায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৪৫৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসময় বিভিন্ন ব্যাক্তি প্রতিষ্ঠানকে প্রায় ৪ লক্ষ ৬৫ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আমাদের অভিযান সবসময় চলমান থাকায় পরিসংখ্যান কিছুটা বাড়তে পারে।’

জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল হাসান জানান, রেড জোন হিসেবে রয়েছে কুমিল্লা । এখানে আক্রান্ত ও মৃত্যর হার সবচেয়ে বেশি। লকডাউন কঠোরভাবে কার্যকর করতে জেলা প্রশাসন তৎপর রয়েছে।