দেশে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্ত : আইইডিসিআর

করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃত্যুতে প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড হচ্ছে ভারতে। গেল ২ সপ্তাহ ধরে দেশটিতে প্রতিদিন আক্রান্ত হিসাবে সনাক্ত হয়েছে প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষ। আর এ পর্যন্ত মৃত্যু ২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। একদিনে এত সংখ্যক করোনা রোগী বিশ্বের আর কোনও দেশে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বের অন্তত ১৭টি দেশে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন পাওয়া গেছে এদের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশও। দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট (ধরন) শনাক্ত হয়েছে বলে শনিবার (৮ মে) রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইডিসিআর) তথ্য নিশ্চিত করেছে।

আইডিসিআর জানায়, রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের একটি নমুনা পরীক্ষায় এ ভারতীয় স্টেইন ধরা পড়েছে। যা জার্মানির গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লুয়েঞ্জা ডাটাতে (জিএসআইডি) প্রকাশিত হয়েছে। ভারতের করোনা পরিস্থিতি কেন এত জটিল আকার ধারণ করেছে, সেটি বিশ্লেষণ করেছেন বাংলাদেশের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক সরকারি প্রতিষ্ঠান আইইডিসিআরের উপদেষ্টা অধ্যাপক মুশতাক হোসেন। চীন আন্তর্জাতিক বেতারের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ভারতে বিধানসভা নির্বাচনে বেশ কিছু জায়গায় গণজমায়েত হয়। এছাড়াও সামাজিক অনুষ্ঠানসহ নানারকম আয়োজনে লোকসমাগম ছিল ব্যাপক। এসব জায়গা থেকে করোনার সংক্রমণ বেড়েছে বলে মনে করছেন তিনি।

অধ্যাপক মুশতাক হোসেন বলেন, বাংলাদেশ থেকে ভারতে সব ধরনের আনুষ্ঠানিক যোগাযোগ বন্ধ থাকলেও জরুরি স্বাস্থ্যসেবাসহ অনানুষ্ঠানিক যাতায়াত এখনও হচ্ছে। সে কারণে ভারতে করোনার যে নতুন ধরন দেখা দিয়েছে তা বাংলাদেশে ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েই গেছে।